কিভাবে স্কুল ইউনিফর্ম ব্যবসা শুরু করবেন | How to start School Uniform Business Plan in Bangla

আসসালামু আলাইকুম। আজকে আপনাদের মাঝে তুলে ধরব কীভাবে স্কুল ইউনিফর্ম ব্যবসা করবেন ? কিভাবে স্কুলের ইউনিফর্ম তৈরি করে সেগুলো বিক্রি করবেন ? তার কিছু আইডিয়া বলবো তো চলুন জানা যাক

যা যা থাকছে

স্কুল ইউনিফর্ম ম্যানুফ্যাকচারিং এবং শপ বিজনেস প্ল্যান কীভাবে করবেন (How To Start School Uniform Manufacturing and Shop Business Plan)

টেক্সটাইল ব্যবসা এমন একটি ব্যবসা যার চাহিদা প্রচুর। এর চাহিদা কখনোই কমে না ।আরও জানা গেছে ভারতে আগামী সময়ে এই শিল্পের চাহিদা আরও বাড়বে বলে আশা করা হচ্ছে। একই সাথে বস্ত্র ব্যবসার সঙ্গেও অনেক ধরনের ব্যবসা জড়িত রয়েছে।

যেমন, কেউ যদি নারী সম্পর্কিত পোশাকের ব্যবসা করে অথবা  শিশু বা পুরুষদের পোশাক বিক্রির ব্যবসা করে। একই সাথে, আজ আমরা আপনাদের মাঝে  শিশুদের পোশাকের ব্যবসা সম্পর্কে তথ্য দিবো।

কম টাকায় বাচ্চাদের ইউনিফর্ম অর্থাৎ স্কুল ইউনিফর্মের ব্যবসা শুরু করতে পারেন। শিশুদের স্কুল ইউনিফর্ম বাজারে সবসময় চাহিদা থাকে।

আপনি যদি এই ব্যবসাটি খুলেন অনেক  লাভবান হবেন ইনশাআল্লাহ । ব্যবসাটি খুলতে আগ্রহী হলে, এই নিবন্ধটি আপনার জন্য উপকারী প্রমাণিত।

স্কুল ইউনিফর্ম ব্যবসায় লাভ (school uniform business profit)

দেশের প্রতিটি শহরে আপনি অনেক স্কুল পাবেন। এর মধ্যে কিছু স্কুল সরকারি আবার কিছু বেসরকারি। এই দুই ধরনের স্কুলেই ইউনিফর্মের চাহিদা রয়েছে। প্রতি বছর নতুন শিশুরা স্কুলে ভর্তি হয়, যাদের ইউনিফর্মের প্রয়োজন হয়।

একইভাবে, ইতিমধ্যে বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদেরও প্রতি বছর নতুন ইউনিফর্ম নিতে হয়। প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কমপক্ষে দুটি ইউনিফর্ম থাকতে হয়। একই সময়ে আপনি অনুমান করতে পারেন যে প্রতিটি শিক্ষার্থীর সময়ে সময়ে ইউনিফর্ম প্রয়োজন, তাই আপনার ব্যবসার চাহিদা প্রতি বছর একই থেকে যায় ।

হিসাব অনুযায়ী দেখা যায়, একজন ব্যবসায়ীর তৈরি ইউনিফর্ম নিয়ে বিক্রি করলে ইউনিফর্মে ৫০ থেকে ৮০ টাকা লাভ করা সম্ভব। অন্যদিকে, আপনি যদি নিজের হাতে সেলাই করা কাপড় পান এবং পরে তা বিক্রি করেন তাহলে এতে আপনার লাভ বেশি হয়।

See also  ঘরে বসে চকলেট ব্যবসা করুন | Chocolate Business Idea in Bangla

স্কুল ইউনিফর্ম মূল্য তালিকা (school uniform price list )

আপনি যেকোনো ব্যাবসায়ই করেন না কেনো, আপনার সেই বিষয়ে ধারণা থাকা আবশ্যক। কেননা ধারণা বাদে কখনোই লাভবান হওয়া সম্ভব না। তাই ব্যাবসা টা করার আগে ভেবে নিতে হবে কেমম কি করা যায় এই পণ্য বিষয়ক লাভ হবে কেমন এসব বিবেচনা করে ব্যাবসায় নেমে যেতে হবে।

ব্যবসায় পা দেওয়ার আগে সেই ব্যবসার দ্বারা তৈরি পণ্যের বাজার মূল্য কত তা জেনে নেওয়া উচিত। একই সময়ে, আমরা যদি বাজারে বিক্রি হওয়া ইউনিফর্মের দামের কথা বলি, তাহলে স্কার্টের দাম 300 টাকা থেকে শুরু হয়।

একই সময়ে, শার্টের দাম শুরু হয় 250 টাকা থেকে। এছাড়া প্যান্টের প্রারম্ভিক মূল্য 200 টাকা। এসব দাম বিষয়ক ধারণা গুলো ধারণ করতে হবে আপনার ভেতর। 

স্কুল ইউনিফর্মের ধরন (Types of school uniform)

প্রতিটি স্কুলে শিশুরা বিভিন্ন ধরনের ইউনিফর্ম পরিধান করে। অনেক স্কুলে ছেলেরা স্কার্ট এবং শার্ট পরে থাকে, যখন অনেক স্কুলে ছেলেদের ইউনিফর্ম হিসেবে স্যুট বেছে নেওয়া হয়।

যেখানে ছেলেদের প্যান্ট বা হাফপ্যান্ট দরকার। একই সময়ে, ছোট ক্লাসের শিক্ষার্থীদের জন্য, রঙিন শার্টগুলি স্কুলের লোকেরা ইউনিফর্ম আকারে নির্ধারণ করে।

অর্থাৎ, আপনি যখনই এই ব্যবসা শুরু করবেন, আপনাকে স্কুলের ছেলেমেয়েদের পরা সব ধরনের ইউনিফর্ম তৈরি করে বাজারে বিক্রি করতে হবে।

স্কুল ইউনিফর্ম চুক্তি কিভাবে পাবেন (how to get school uniform contracts)

এই ব্যবসা শুরু করার দুটি উপায় রয়েছে,

  •  প্রথম উপায় অনুসারে, আপনি ইউনিফর্ম তৈরি করে এমন কারও কাছ থেকে ইউনিফর্ম কিনতে পারেন এবং স্কুলে বা দোকানের মাধ্যমে গ্রাহকদের কাছে বিক্রি করতে পারেন।
  •  দ্বিতীয় পদ্ধতি অনুসারে, নিজের হাতে ইউনিফর্ম তৈরি করুন এবং তারপর স্কুল বা আপনার দোকান খুলে বিক্রি করুন।

 আপনি এই উভয় ধরণের পদ্ধতির মাধ্যমে মুনাফা অর্জন করতে পারেন।

একটি ইউনিফর্ম ব্যবসা শুরু করার জন্য প্রয়োজনীয় উপাদান সমূহ (school uniform material)

এই ব্যবসা শুরু করার জন্য আপনার কাপড়ের প্রয়োজন হবে। ইউনিফর্ম তৈরিতে যে কাপড় ব্যবহার করা হয় তা আপনি যেকোনো কাপড় ব্যবসায়ীর কাছ থেকে কিনতে পারেন। এটি ছাড়াও, অন্যান্য জিনিস আপনার প্রয়োজন হবে. যেমন: কাঁচি, জিপ, হুক, থ্রেড, প্রেস এবং বোতাম ইত্যাদি।

ইউনিফর্ম তৈরির জন্য সিট কাপড় কোথায় কিনবেন (where to buy raw cloth)

ইউনিফর্ম তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় কাপড় আপনি যেকোনো পাইকারি বাজার থেকে কিনতে পারেন। অন্যদিকে, আপনি যখন একসাথে অনেকগুলি কাপড় কিনেছেন, তখন আপনি এটি কিছুটা সস্তাও পাবেন। তবে ইউনিফর্মের জন্য আপনাকে বিভিন্ন রঙেরকাপড় কিনতে হবে। কারণ প্রতিটি স্কুলের ইউনিফর্ম অন্য স্কুল থেকে আলাদা। 

অন্যদিকে, আমরা যদি কাপড়ের দামের কথা বলি, তাহলে আপনি ৩৫ থেকে ৪৫ টাকায় এক মিটার কাপড় পাবেন। অন্যদিকে, আপনি যদি পুরো কাপড়ের থানটি নেন তবে আপনি এটি আরো সস্তায় পাবেন। যাই হোক, এতগুলো ইউনিফর্ম তৈরি করতে হলে জামাকাপড়ের পুরো স্টক নেওয়াটাই ভালো হবে।

ইউনিফর্ম ব্যবসা সম্পর্কিত মেশিন এবং দাম (স্কুল ইউনিফর্ম ম্যানুফ্যাকচারিং মেশিন) (school uniform manufacturing machines)

এই ব্যবসার কাজ কাপড়ের সাথে সম্পর্কিত, তাই এতে ব্যবহৃত মেশিনটিও কাপড় তৈরির সাথে সম্পর্কিত। ইউনিফর্ম সেলাই করার জন্য আপনাকে একটি সেলাই মেশিন নিতে হবে। একই সময়ে, এই মেশিনগুলির দাম 5000 টাকা থেকে শুরু হয়। যন্ত্রচালিত মেশিন নিলে ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকা খরচ হবে।

ইউনিফর্ম ব্যবসারসেলাই মেশিন কোথায় পাবেন (Place To Buy Stitching Machine )

আপনি সহজেই বাজার থেকে ইউনিফর্ম ব্যবসার মেশিন কিনতে পারেন। অন্যদিকে, আপনার যদি খুব বেশি বাজেট না থাকে তবে আপনি এই মেশিনগুলি সেকেন্ড হ্যান্ড কিনতে পারেন। এছাড়াও, এই মেশিনগুলো কেনার জন্য একটি অনলাইন বিকল্পও রয়েছে। আপনি সহজেই অনলাইন থেকে  অনেক ধরণের সেলাই মেশিন পাবেন।

See also  গুড়া দুধের ব্যবসা কী এবং কিভাবে এই ব্যবসা শুরু করবেন | Milk powder business idea in bangla

একই সাথে, কারও কাছ থেকে এই মেশিনগুলি কেনার আগে, তাদের দামগুলি ভালভাবে জেনে নিন এবং যেখান থেকে আপনি এই মেশিনটি সস্তায় পাবেন সেগুলি কিনুন।

একই সাথে, নীচের লিঙ্কে, আপনি এই মেশিনগুলির দাম সম্পর্কে ভাল তথ্য পাবেন। এছাড়া আপনি চাইলে এই লিংক থেকেও এই মেশিনগুলো কিনতে পারেন।

https://www.mysmartprice.com/appliance/pricelist/sewing-machines-price-list-in-india.html#subcategory=sewing-machines

https://dir.indiamart.com/impcat/sewing-machines.html

আপনি যদি ছোট পরিসরে এই ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবছেন, তাহলে আপনার দুই থেকে চারটি মেশিন লাগবে। আর আপনি যদি এই ব্যবসাটি বড় আকারে শুরু করেন তবে আপনার 10 থেকে 15টি মেশিন লাগবে।

ইউনিফর্ম তৈরির জন্য কর্মচারী নিয়োগ (recruitment of employees)

ইউনিফর্ম ব্যবসা র জন্য আপনার এমন লোক লাগবে যারা কাপড় সেলাই করতে জানে। একই সময়ে, সেলাইয়ের অভিজ্ঞতা আছে এমন লোকদের বেছে নিন। এর পাশাপাশি আপনি সেলাই শিখতে চান এমন লোকদেরও নিয়োগ দিতে পারেন।

এতে করে আপনি কম টাকায় লোকেদের কাজ পাবেন। একই সময়ে, এই ব্যক্তিদের নির্বাচন করার পরে, আপনি আপনার ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

স্কুল ইউনিফর্ম তৈরির প্রক্রিয়া (Process Of School Uniform Making) 

একটি স্কুল ইউনিফর্ম তৈরি করতে, প্রথমে আপনাকে যে ইউনিফর্মটি সেলাই করতে চান তার আকার অনুযায়ী কাপড়টি কাটতে হবে। কাপড় কাটার পর মেশিনের সাহায্যে সেলাই করতে হবে।

সেলাই শেষ হলে সেই কাপড়ে গিম্প লাগানো, বাঁধার কাজ করতে হবে। এই কাজ শেষ হলে আপনার ইউনিফর্ম তৈরির প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে। ইউনিফর্ম বানানোর পর ভালো করে ইস্ত্রি করতে হবে।

ইস্ত্রি করার পরে, আপনাকে সেই ইউনিফর্মটি খামে প্যাক করতে হবে। একইভাবে, আপনাকে অন্যান্য আকারের শিশুদের ইউনিফর্ম সেলাই করতে হবে। আপনার অনেক ইউনিফর্ম প্রস্তুত হয়ে গেলে, আপনি সেগুলি বিক্রি শুরু করতে পারেন।

স্কুল ইউনিফর্ম বিক্রির প্রক্রিয়া বা কিভাবে স্কুল ইউনিফর্ম বিক্রি করবেন (How To Sell School Uniform )

আপনি যেকোনো স্কুলে সরাসরি স্কুলের ইউনিফর্ম বিক্রি করতে পারেন, অন্যথায় আপনি আপনার দোকান খুলে তাতে আপনার তৈরি করা ইউনিফর্ম বিক্রি করতে পারেন।

অন্যদিকে, আপনি যদি আপনার দোকান খোলেন, তাহলে আপনি মোজা, স্কুলের বাচ্চাদের বেল্ট, ব্যাগ ইত্যাদিও বিক্রি করতে পারবেন। এতে করে আপনার আয় বাড়বেই। যে কোন গ্রাহক ইউনিফর্ম পেতে আপনার কাছে আসবেন তিনি উপরে উল্লিখিত অন্যান্য জিনিসও কিনবেন।

ঘরে বসেও শুরু করা যায় ইউনিফর্ম ব্যবসা (how to run this business from home) 

আপনি যদি ভাল সেলাই জানেন এবং আপনি শিশুদের জন্য কাপড় সেলাই করতে পারেন। তাহলে আপনি আপনার বাড়ি থেকে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। আপনি আপনার বাড়িতে দু-চারটি মেশিন রেখে কাপড় সেলাই করতে পারেন এবং স্কুলের ইউনিফর্ম বিক্রির দোকানে গিয়ে দোকানদারের কাছে বিক্রি করতে পারেন।

একই সময়ে, বাড়ি থেকে শুরু করার জন্য আপনার কিছু লোকেরও প্রয়োজন হবে। একই সময়ে, যখন আপনার ব্যবসা চলতে শুরু করে, তখন আপনি এটি একটি বড় পরিসরে শুরু করেন।

বাড়িতে কাপড় তৈরির প্রক্রিয়া সম্পর্কে কথা বললে, আপনার একটি সেলাই মেশিন এবং উপরে উল্লিখিত অন্যান্য জিনিসগুলোর প্রয়োজন হবে। যেখানে কাপড় সেলাইয়ের পদ্ধতি হবে উপরে উল্লিখিত পদ্ধতি অনুসারে মানতে হবে ।

স্কুল ইউনিফর্ম ব্যবসার জন্য প্রয়োজনীয় লাইসেন্স সমূহ (License process)

আপনি যদি একটি কোম্পানি খুলে স্কুল ইউনিফর্মের এই ব্যবসা শুরু করেন, তবে এটি করতে আপনাকে আপনার ব্যবসা নিবন্ধিত করতে হবে। আপনার ব্যবসা নিবন্ধন করতে আপনার অনেক নথির প্রয়োজন হবে।

যেমন আধার কার্ড জাতীয় পরিচয় পত্র , পরিচয়পত্র, আপনি যেখানে ব্যবসা শুরু করছেন তার ঠিকানা ইত্যাদি। একই সময়ে, আপনার কোম্পানির জন্য এমন একটি নাম চয়ন করুন যা কথা বলা এবং মনে রাখা সহজ।

See also  ?কিভাবে একটি ফুড ট্রাক ব্যবসা শুরু করবেন ?? | How to Start a Food Truck Business in Bangla

সব কিছু করার পরে, আপনি আপনার শহরের সরকারী অফিসে যেতে পারেন যেখানে কোম্পানির নাম নিবন্ধিত আছে। সেখানে যান এবং আপনার ব্যবসা নিবন্ধন করুন।

প্যাকেজিং এবং লেবেলিং প্রক্রিয়া (Packaging And Labelling Process)

আপনি যদি কোনো স্কুলে আপনার তৈরি ইউনিফর্ম সরবরাহ করেন, তাহলে আপনি আপনার দোকানের লোগো ব্যবহার করে একটি প্যাকেট তৈরি করতে পারেন।

প্রতিটি ইউনিফর্ম এর জন্য আলাদা আলাদা প্যাকেট করলে, আপনি নিরাপদে স্কুলে বা আপনার ক্লায়েন্টদের কাছে আপনার পণ্য সরবরাহ করতে পারবেন। আপনার নিজের প্রতিষ্ঠানের লোগো ব্যবহার করলে একই সাথে বিপণন এবং মার্কেটিং দুটি সম্পন্ন হবে।

ইউনিফর্ম ব্যবসার জন্য স্থান নির্বাচন (Space required for business)

ইউনিফর্ম সম্পর্কিত এই ব্যবসার জন্য আপনার বিশাল জায়গার প্রয়োজন হবে না। তিন থেকে চারটি বড় রুম ভাড়া নিয়ে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন বড় পরিসরে।আর ছোট পরিসরে করলে ১ থেকে ২ টা কক্ষ লাগে। 

অন্যদিকে, আপনি যদি একটি দোকান খুলতে চান এবং আপনার মাধ্যমে কাপড় বিক্রি করতে চান, তবে আপনাকে দোকানের জন্য এমন একটি জায়গা বেছে নিতে হবে, যার চারপাশে অনেক স্কুল রয়েছে। যাতে স্কুলের বাচ্চারা আপনার কাছ থেকে ইউনিফর্ম কিনতে পারে।

ইউনিফর্ম ব্যবসার জন্য প্রয়োজনীয় সতর্কতা 

জামাকাপড় এমন একটা জিনিস যেগুলোর যত্ন না নিলে নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তাই জামাকাপড় এমন জায়গায় রাখুন যাতে কোনো দাগ না লাগে ধুলা বালি ময়লা এসব থেকে সেফ রাখতে হবে ।

এছাড়াও, আপনি যে জায়গায় এই ব্যবসা শুরু করতে যাচ্ছেন সেখানে যেন কোনো ইঁদুর না থাকে  ইঁদুর যদি থাকে তাহলে তাদের মারার ওষুধ ব্যবহার করা উচিত। কেননা জামাকাপড় নষ্ট করে কেটে দেবার ভয় থাকে।

ইউনিফর্ম ব্যবসা মার্কেটিং করবেন যেভাবে (Marketing of school uniform business)

প্রচারের জন্য অর্থাৎ আপনার দ্বারা প্রস্তুত ইউনিফর্মের বিপণনের জন্য, আপনাকে আপনার শহরের প্রতিটি স্কুলে আপনার কোম্পানির তথ্য দিতে হবে। আপনি চাইলে যে কোন ব্যক্তির উপর এই দায়িত্ব অর্পণ করতে পারেন। তাহলে মার্কেটিংয়ে আপনার সময় কম দিতে হবে।

আপনার যদি তেমন বাজেট না থাকে, তাহলে আপনি স্কুলগুলোর ব্যবস্থাপনার সাথে দেখা করতে পারেন এবং তাদের আপনার ব্যবসা সম্পর্কে তথ্য দিতে পারেন তারা যেন আপনার সাহায্য করে । আপনার প্রস্তুত করা ইউনিফর্ম যদি তাদের জন্য ভালো এবং সস্তা হয়, তবে তারা অবশ্যই আপনার কাছ থেকে এই ইউনিফর্মগুলি কিনবে।

একই সময়ে, আপনার ব্যবসাকে শুধুমাত্র একটি স্কুলের মধ্যে সীমাবদ্ধ করবেন না । বিভিন্ন স্কুলে আপনার তৈরি ইউনিফর্ম বিক্রি করার চেষ্টা করবেন।

ইউনিফর্ম ব্যাবসা শুরু করার জন্য প্রয়োজনীয় মূলধন (Business start-up Costs)

এই ব্যবসা শুরু করতে ৪ থেকে ৬ লাখ টাকার দরকার হবে। ছোট পরিসরে শুরু করলে দুই লাখ টাকায়ও এই ব্যবসা শুরু করা যায়।

ব্যবসায়িক ঋণ সুবিধা (Business Loan Facility)

পরিমাণ মতো টাকা না থাকলে এই ব্যবসা যেকোনো ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে ব্যবসা শুরু করতে পারেন। শুধু তাই নয়, ক্ষুদ্র ব্যবসার প্রসারের জন্য আমাদের সরকার অনেক পরিকল্পনাও চালাচ্ছে। এই স্কিমগুলির সাহায্যে, আপনি কম সুদে ঋণও নিতে পারেন।

এই ব্যবসার সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য ব্যবসা-

 আপনার যদি এই ব্যবসাটি ভালভাবে চলতে শুরু করে, তাহলে আপনি এই ব্যবসার সাথে পোশাক সম্পর্কিত অন্যান্য পণ্য নিয়ে ব্যবসা শুরু করতে পারেন। শুধু স্কুল ইউনিফর্মের মধ্যে সীমাবদ্ধ না থেকে আপনি অন্যান্য ইউনিফর্মও তৈরি করতে পারেন।

কোম্পানি ইউনিফর্ম ব্যবসা এবং প্রক্রিয়া (Industrial Uniform Business And Process)

অনেক কোম্পানি আছে যেখানে তাদের কর্মীদের ইউনিফর্ম পরে কাজ করতে হয়। এমন পরিস্থিতিতে, আপনি তাদের জন্য ইউনিফর্ম তৈরি করে কোম্পানিতে বিক্রি করতে পারেন।

Source: Business Funda

প্রবীণদের জন্য ইউনিফর্ম তৈরির প্রক্রিয়াটি স্কুলের ইউনিফর্ম তৈরির প্রক্রিয়ার মতোই। আপনি যদি শিশুদের ইউনিফর্ম তৈরি করেন, তাহলে আপনি সহজেই বয়স্কদের জন্যও ইউনিফর্ম তৈরি করতে পারবেন।

এতে করে আপনার লাভ আরও বাড়বে। চতুর দিকে খেয়াল করে  ব্যাবসাটি চালিয়ে যান দেখবেন আপনি অনেক লাভবান হয়েছেন বড় সফল ব্যাবসায়ী।

শেষ মন্তব্য

সফল ব্যাবসায়িক হতে হলে আপনাকে সব সময় বিষয় টি নিয়ে ভাবতে হবে।যে বিষয় নিয়ে ব্যাবসাটি শুরু করবেন তার মূল বিষয় গুলো চতুর দিকে বুঝে নিতে হবে।পুঁজি জোগাড় করতে হবে। জ্ঞানমূলক উপস্থিত থাকতে হবে।

তবেই সফলতা পাবেন ইনশাআল্লাহ। সফলতা পেতে হলে কষ্ট করতেই হয়।কয়েকবছর কষ্ট লস সব কিছু পেরিয়ে লাভবান হতে পারবেন।

এক কথায় ব্যাবসার জন্য দরকার ধৈর্য। ধৈর্য যার ব্যাবসা তার। সফল হতে হলে উপরের আলোচনা গুলো ফলো করুন তাহলে অবশ্যই লাভবান হবেন। খোদা হাফেজ  ভালো থাকবেন সবাই। 

FAQ

এ ব্যবসা শুরু করতে সর্বনিম্ন মূলধনের প্রয়োজন কত ?

সর্বনিম্ন ৪০ হাজার টাকা দিয়ে এব্যবসা শুরু করতে পারবেন।

স্কুল ইউনিফর্ম এর ব্যবসা ছোট পরিসরে শুরু করতে গেলে লাইসেন্সের প্রয়োজনীয়তা কতটুকু?

আপনি যদি ছোটপরিসরে স্কুল ফর্ম এর ব্যবসা শুরু করতে চান, তাহলে শুধুমাত্র আপনার কাছাকাছি কোন ইউনিয়ন পরিষদ বা সিটি কর্পোরেশন থেকে ট্রেড লাইসেন্স সংগ্রহ করলে আপনি এই ব্যবসা বিনা ঝামেলায় শুরু করতে পারবেন।

স্কুল ইউনিফর্ম ব্যবসায়ী মার্কেটিং এর গুরুত্ব কেমন?

আপনি যে ব্যবসায় শুরু করেন না কেন সে ব্যবসাতেই মার্কেটিং এর গুরুত্ব অপরিসীম। কেননা মার্কেটিং এর মাধ্যমে আপনি আপনার কাঙ্ক্ষিত কাস্টমার খুজে পাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *