ঘরে বসে চকলেট ব্যবসা করুন | Chocolate Business Idea in Bangla

আসসালামু আলাইকুম সবাইকে। আজ আমরা আলোচনা করবো কিভাবে ঘরে বসে আপনি Chocolate business করবেন। 

প্রায়ই মহিলারা বাসায় বসে বসে বোরিং ফিল করে এসময় তারা বিভিন্ন জিনিস তৈরী করে বা কোন ব্যাবসা শুরু করার কথা চিন্তা করে যাতে তারা তাদের পরিবারের পাশে দাড়াতে পারে। তাছাড়াও অনেকেই তাদের শখের বসে বিভিন্ন শিল্পকাজ করে থাকে।  আজ আমরা এমন একটি ব্যবসা নিয়ে আলোচনা করবো যা নারী বা পুরুষ যে কেও ঘরে বসে শুরু করতে পারেন।

আপনি চাইলে আপনার শিল্পী মনের মাধ্যুয্য দিয়ে চকলেট এর বিভিন্ন শেপ দিয়ে চকলেট তৈরির ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এর জন্য আপনাকে সৃজনশীল হতে হবে। আপনি আপনার সৃজনশীলতা এবং দক্ষতা দেখিয়ে চকলেট তৈরি করে তা থেকে উপার্জন করতে পারবেন। তবে সেটা কিভাবে করবেন সেটাই নিচে আলোচনা করবো এখন। 

যা যা থাকছে

বাজার গবেষণা | Market Survey chocolate Business

যেকোনো ব্যাবসা শুরু করার কথা চিন্তা করার পূর্বে বাজার বিশ্লেষণ করা। এছাড়া আপনার এলাকায় আর কোন চকলেট ব্যাবসায়ী থাকলে তার চকলেট  ব্যাবসা থেকে আপনার চকলেট ব্যবসা কীভাবে আলাদা করতে পারবেন সেটা ভেবে বের করতে হবে। এর জন্য আপনি আপনার কম্পিটিটর এনালাইসিস করে দেখতে পারেন তারা কি ধরনের চকলেট তৈরি করছে ? কাস্টমারের নিকট কি ধরনের চকলেট এর চাহিদা বেশি?  এসব ধারণা নিয়ে সে অনুযায়ী আপনি চকলেট তৈরি করতে পারেন। 

See also  বর্তমানের সেরা ১০টি ক্যারিয়ার টিপস | Career Tips In Bangla

আরো জানুনঃ Organic food business Idea in Bangla

গত এক দশকে চকলেট শিল্পের বৃদ্ধি স্থানীয় এবং আন্তজার্তিক উভয় ক্ষেত্রেই উল্লেখযোগ্য ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। চকলেট এমন একটি পণ্য যার মার্কেট চাহিদা কখনোই কম ছিল না। সুতরাং চকলেট ব্যবসা এর ভবিষ্যৎ অনেক ভালো। আপনি যখন বাসায় বসে ক্ষুদ্র পরিসরে শুরু করবেন তখন এর কম্পিটিশন মাঝারি তবে আপনি যদি মোটামুটি বাজেট নিয়ে মার্কেটিং করে বিক্রি শুরু করেন তাহলে এর মাধ্যমে আপনি প্রচুর অর্থ ইনকাম করতে পারবেন ইনশাআল্লাহ। 

চকলেট ব্যবসা কাদের জন্য | Who can do a Chocolate Business

যে কোন ব্যাক্তি যিনি খেতে এবং চকলেট তৈরি করতে পছন্দ করেন, তিনি এই ব্যাবসা শুরু করতে পারেন। সে আপনি গৃহীনি হোন কিনবা কিশোরী হোন বা সিনিয়র সিটিজেন। যে ব্যাক্তি এই ব্যাবসায় আগ্রহী এবং চকলেট সম্পর্কে ধারণা রয়েছে সেই এই ব্যাবসা খুব সহজে সফলভাবে শুরু করতে পারেন এবং দিন শেষে প্রচুর মুনাফা ঘরে তুলতে পারবেন।

চকলেট ব্যবসার জন্য প্রয়োজনীয় লাইসেন্স এবং সার্টিফিকেট | License For Chocolate Business

এই ব্যাবসা শুরু করার জন্য আপনার কিছু লাইসেন্স এবং সার্টিফিকেট এর প্রয়োজন হবে-

ট্রেড লাইসেন্সঃ

ব্যাবসা শুরু করার জন্য এটি সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ। আপনি একটি ট্রেড লাইসেন্স করে নিবিগ্নে ব্যাবসা চালিয়ে যেতে পারেন। ট্রেড লাইসেন্স করবার জন্য আপনাকে স্থানীয় সরকার এর অফিসে গিয়ে সেখান থেকে NOC নিতে হবে আর বাংলাদেশে থাকলে ইউনিয়ন পরিষদ বা পৌরসভার থেকে ৫০০-৫০০০ টাকার মধ্যে আপনি এই লাইসেন্স পেয়ে যাবেন।

কোম্পানি রেজিষ্ট্রেশনঃ 

আপনি যদি কোন কোম্পানি খুলে এ ব্যাবসা শুরু করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে কোম্পানি রেজিষ্ট্রেশন করতে হবে। যাতে বোঝা যায় আপনার কোম্পানি আইনত সঠিক। কেননা বর্তমানে হরহামেশাই অনেক নকল কোম্পানি গড়ে উঠেছে যেগুলো অবৈধ কার্যক্রম করে মানুষ ঠকানোর কাজে লিপ্ত হয়।

আরো জানুনঃ ২০২২ সালে নতুন ব্যবসা কৌশল

BSTI বা FSSAI প্রশংসাপত্র বা লাইসেন্সঃ 

আপনি যদি বাংলাদেশে এই ব্যবসা শুরু করতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই BSTI এর লাইসেন্স নিতে হবে কেননা এটি খাদ্যপণ্য।

 আর আপনি যদি ইন্ডিয়া থেকে এই ব্যাবসা শুরু করতে চান তাহলে খাদ্যপন্য হওয়ার দরুন আপনাকে FSSAI থেকে প্রশংসাপত্র বা লাইসেন্স নিতে হবে এছাড়াও রাজ্যের বা দেশের সাস্থ্য দফতর কর্তৃক সকৃতি নিতে হবে।

See also  কিভাবে স্কুল ইউনিফর্ম ব্যবসা শুরু করবেন | How to start School Uniform Business Plan in Bangla

ট্রেডমার্ক নিবন্ধনঃ

প্রতিটি ব্যবসা শুরু করার পর ট্রেডমার্ক নিবন্ধন করাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ কেননা এটির মাধ্যমে কেও আপনার ব্যান্ড এর নাম বা লোগো চুরি করে নিজের নামে করতে পারবে না।  এতে করে গ্রাহকদের আপনার ব্রান্ড চিনতে সুবিধা হয় এবং বিশ্বাসের সাথে আপনার পন্য ব্যবহার করতে পারে।

GST নাম্বারঃ

আপনার ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান ইন্ডিয়ার মধ্যে হলে, আপনাকে অবশ্যই আপনার কোম্পানির নামে GST নাম্বার খুলে নিতে হবে।  তা না হলে আপনি আপনার কোম্পানির নামে ব্যাংকের কারেন্ট একাউন্ট  খুলতে পারবেন না। 

প্রশিক্ষণ | Chocolate Business Course

চকলেট তৈরির প্রশিক্ষণ এর জন্য আপনাকে কোন ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে যেতে হবে না।  এর প্রশিক্ষণ আপনি ঘরে বসে ইন্টারনেটের মাধ্যমে গুগল করে সমস্ত তথ্যই খুজে পাবেন। গুগলে আপনি বিভিন্ন ভিডিও এবং আর্টিকেল পাবেন যেখান থেকে আপনি চকলেট সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য পেয়ে যাবেন। একটু ভালো করে খুজলে আপনি গুগল থেকে চকলেট তৈরির সমস্ত প্রক্রিয়াটি জেনে যেতে পারবেন। আপনাকে শুধু মনে রাখতে হবে আপনার চকলেট গুলো যেন অনন্য হয় সাদে এবং গুণে। যেন এটি মানুষকে আকৃষ্ট করে বার বার কনজিউম করতে।

লোকেশন | Location For Chocolate Business

আপনি যদি চকলেটের দোকান দেন তাহলে এর জন্য আপনাকে এমন একটি লোকেশন বাছাই করতে হবে যা বাজার, সুপার মার্কেট, বা শপিং মলের নিকটে শুরু করতে পারেন৷ তাছাড়া মহিলারা ঘরে বসে চকলেট তৈরি করে অনলাইনে বিভিন্ন গ্রুপ বা মার্কেটপ্লেসের মাধ্যমে বিক্রি করতে পারেন। 

চকলেট তৈরির প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি | Important Equipment For Chocolate business

Chocolate Making Process
Source: Lovechock

চকলেট তৈরি করতে আপনার নিম্নলিখিত যন্ত্রপাতির প্রয়োজন হতে পারেঃ 

মেল্টারঃ

এই মেশিনটি চকলেটের মল্ডটিকে গলাতে সাহায্য করে।  তবে আপনি বাসায় করলে ডাবল বয়লার ব্যাবহার করে গ্যাসে গলাতে পারেন চকলেট। 

মিক্সিং মেশিনঃ

এই যন্ত্রটি আপনাকে গলিত চকলেট গুলো মিশ্রিত করতে সাহায্য করবে। 

টেম্পারেচার কন্ট্রোলারঃ 

এই মেশিন আপনার তৈরি কৃত চকলেটের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করবে।

রেফ্রিজারেটরঃ

চকলেট বসানোর জন্য আপনার একটি হিমায়ক যন্ত্র বা ফ্রিজ লাগবে।

See also  মাসে লক্ষ ইনকাম পেপার কাপ তৈরি করে | Paper Cup Business Idea In bangla

উপরুক্ত মেশিন ছাড়া আপনার আর এই ব্যাবসার জন্য অতিরিক্ত কোন মেশিনপত্র লাগবে না। যেহেতু এই ব্যবসা ঘরে বসেই করা যায় তাই এতে ব্যাবহ্রত বেশিরভাগ যন্ত্রপাতি আপনি আপনার রান্নাঘরেই পেয়ে যাবেন। 

চকলেট তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় কাচামাল | Raw Material for Chocolate  Business 

চকলেট তৈরির জন্য আপনার নিম্নলিখিত কাচামালের প্রয়োজন হবেঃ- 

  • চকলেট যৌগ
  • সিলিকন চকলেট ছাচ
  • স্প্যামটুলা 
  • চকলেট মোরক করবার জন্য প্রয়োজনীয় র‍্যাপিং পেপার
  • চকো চিপস 
  • বাদাম
  • ফুড কালার
  • ফলের স্মেল
  • ট্রে

চকলেট তৈরির জন্য উপরুক্ত উপাদান গুলো আপনি খুব সহজে মার্কেটে পেয়ে যাবেন। মার্কেটে না পেলে আপনি দারাজ,আমাজন বা ফ্লিপকার্টে খুব সহজেই পেয়ে যাবেন ইনশাআল্লাহ। 

চকলেট যেখানে বিক্রি করবেন | Market For Chocolate

আপনার আশেপাশের বাজারের দোকানে আপনি আপনার চকলেট গুলো পাইকারি বিক্রি করতে পারেন।  তাছাড়া আপনি চাইলে বাজার বা মার্কেটে খুচরা চকলেট বিক্রির দোকান করতে পারেন যেখানে অন্যান্য ব্রান্ডের চকলেটর সাথে আপনার চকলেট ও বিক্রি করবেন।

এছাড়া আপনি ওয়েবসাইট তৈরি করে উক্ত সাইটের মাধ্যমে বিক্রি করতে পারেন তাছাড়াও বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে যেমন দারাজআমাজন, ফ্লিপকার্টের মতো বহুল পরিচিত মার্কেট প্লেসে প্রচুর পরিমানে সেল জেনারেট করতে পারেন হাল্কা একটু মার্কেটিং করে। 

আরো জানুনঃ বিজনেস প্ল্যান লেখার 10 টি নিয়ম ? 

মার্কেটিং করবেন যেভাবে | Marketing For Chocolate business

আপনার চকলেট বাজারজাত করার জন্য প্রথমেই আপনার চকলেট এর জন্য একটি ক্যাটালগ তৈরি করুন, যাতে আপনার চকলেট এর নাম, দাম এবং ছবি থাকবে। এই ক্যাটালগ আপনি বিভিন্ন দোকানে দেখিয়ে আপনার পন্য ক্রয় করবার জন্য আকৃষ্ট করতে পারেন।

এছাড়াও আপনি সোস্যাল মিডিয়া তে বিভিন্ন ভিডিও গ্রাফিক্স ব্যাবহার করে আপনার ব্রান্ডের মার্কেটিং করতে পারেন এতে আপনার কাস্টমার দেশব্যাপি ছড়িয়ে যাবে। 

ব্যাবসার জন্য প্রয়োজনীয় বিনিয়োগ ও লাভ | Profit And Losses For Chocolate Business

এই ব্যবসার জন্য খুব বেশি বিনিয়োগ করা লাগবে না।  মহিলারা চাইলে মাত্র ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা দিয়ে এই ব্যাবসা শুরু করতে পারেন। তবে আপনি যদি বৃহত পরিসরে শুরু করতে চান তাহলে যন্ত্র পাতি এবং সব মালামাল সহ সর্বমোট ১ লক্ষ টাকা খরচ হতে পারে।

একবার প্রতিষ্ঠিত হতে পারলে এই ব্যবসা থেকে আপনি ২৫% থেকে ৪৫% পযন্ত লাভ করতে পারবেন। তবে তার জন্য আপনাকে আপনার ১০০% প্যাশন দিয়ে কাজ করতে হবে।

Source: Youtube

ঝুঁকি সূমহ | Risk

চকলেট ব্যবসায় ঝুঁকি খুবিই কম। আপনি যদি ক্ষুদ্র পরিসরে শুরু করেন তাহলে আপনার কোন ঝুঁকিই থাকবে না কারন খুব কম মূলধনে আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন।

আরো জানুনঃ

FAQ

চকোলেট ব্যবসায় সর্বনিম্ন কত মূলধন নিয়ে শুরু করা যায় ?

আপনি সর্বনিম্ন ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা নিয়ে এ ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

চকলেট ব্যবসার জন্য লাইসেন্স নেওয়া কি বাধ্যতা মূলক ?

জি অবশ্যই আপনাকে লাইসেন্স করে নিতে হবে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *