অনলাইন লোন পাওয়ার উপায় । Online Loan In Bangladesh

আপনি একটি ব্যক্তিগত ঋণ বা একটি লোন খুঁজছেন? যদি হ্যাঁ, তাহলে আপনার জানা উচিত যে ইন্টারনেটের কারণে আবেদন প্রক্রিয়া সহজ হয়ে গেছে। প্রকৃতপক্ষে, বেশিরভাগ ব্যাংক এখন মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে অনলাইন লোন প্রদান করে থাকে।

ইন্টারনেট আমাদের জীবন যাপনের উপায় পরিবর্তন করেছে। কেনাকাটা থেকে শুরু করে ব্যাংকিং, সবকিছুই দ্রুত এবং সহজ হয়ে উঠেছে। আজকাল, প্রায় প্রতিটি লেনদেন অনলাইনে করা যায়।

স্মার্টফোন এবং ট্যাবলেটের উত্থানের সাথে, তাদের ডিভাইসের মাধ্যমে ইন্টারনেট অ্যাক্সেস করে এমন লোকেদের সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এর মানে অনলাইনে ঋণের জন্য আবেদনকারীর সংখ্যাও বেড়েছে।

আরো জানুনঃ বিজনেস প্ল্যান লেখার 10 টি নিয়ম

অনলাইন লোন পাওয়ার উপায় সমূহ-

টাকা পেতে হলে অনেকগুলো শর্ত আছে যা পূরনের মাধ্যমে আপনি টাকা পাবেন । তবে আপনাকে এই শর্ত গুলো অবশ্যই মেনে চলতে হবে। আপনি যদি অনলাইনে পার্সোনাল লোন নিতে চান তাহলে আপনাকে কিছু ডকুমেন্ট দেওয়া হবে যা আপনাকে সঠিক ভাবে পূরণ করে জমা দিতে হবে। যেমন—

  • অনলাইনে লোন পাওয়ার অন্যতম উপায় হলো- পার্সোনাল লোন। বর্তমান সময় এখন অনেক এগিয়ে আর পিছিয়ে নেই। ডিজিটাল যুগ তাই ডিজিটাল মাধ্যমে পাবেন এই লোন বর্তমানে প্লে স্টরে গেলে অনেক রকম অ্যাপস আছে আর এই অ্যাপসের মাধ্যমে আপনি ২ মিনিটে টাকা পেয়ে যাবেন।
  • ?আপনি মাসে কত টাকা আয় করেন?
  • ?আপনার ক্রেডিট স্কর কেমন?
  • ? ক্রেডিট স্কর ছাড়া ব্যাক্তির লোন পরিশোধ করার ইতিহাস,ব্যাংকের সাথে আপনার সম্পর্ক কেমন।
  • ?আবার আপনি যে কোম্পানিতে জব করেন তার সুনাম খ্যাত এর উপর ও নির্ভর করে এই অনলাইন লোন দেওয়ার।
See also  Brac Bank Credit Card সম্পর্কে বিস্তারিত এবং Attractive Brac Bank Credit Card Offer In Bangla

যে এপস এর মাধ্যমে অনলাইন লোন পাবেন

সবচেয়ে সেরা ৫ টি অ্যাপস এর মাধ্যমে আপনি লোন পেয়ে যাবেন যদি সব অনুসরণ করেন তাহলে আপনি পাবেন অনলাইন লোন। এখন ৫ টি অ্যাপস এর নাম বলবো।

অনলাইন লোন পাওয়ার উপায়
Source: Pixabay
  1. LazyPay লেজি পে
  2. mpay
  3. Indiabulls Dhani
  4. ZestMoney
  5. KreditBee
  6. Bkash

(LazyPay) লেজি পে লোন যেভাবে পাবেন

Source: Google

LazyPay এর ব্যক্তিগত ঋণের বিবরণ দেওয়া হলো নিচে—

ঋণের পরিমাণ Rs. ১০,০০০ থেকে টাকা ১,০০,০০০।

সুদের হার ১৫% থেকে ৩২% মেয়াদ ৩ থেকে ২৪ মাস।

ঋণের পরিমাণের ২% প্রক্রিয়াকরণ ফি বয়স ২২ থেকে ৫৫ বছর।

জামানত প্রয়োজন নেই।

সর্বনিম্ন ইএমআই টাকা প্রতি লাখে ৪,৮৪৯ টাকা

ভারতের অনলাইন লোন অ্যাপ্লিকেশন যারা এই লোন নিবে তাদের জন্য ১০,০০০,০০০ থেকে ১ লাখ টাকার মধ্যে লোণের সীমা হয়।তাত্ক্ষণিক অনুমোদনের সাথে এবং শূন্য জামানত সহ ব্যক্তিগত ঋণের সুদের হার ১৫% থেকে ৩২% প্রতি বছর ৩ থেকে ২৪ মাসের ইএমআই মেয়াদ সহ আপনি এটিকে ভ্রমণ, পারিবারিক অনুষ্ঠান, বিবাহ, ইলেকট্রনিক্স কেনা, চিকিৎসায় ব্যয়, বাড়ির সংস্কার এবং আরও অনেক কিছুর জন্য ব্যবহার করতে পারেন এই লেজি পে লোন।

(mPokket (এমপকেট) লোন যেভাবে পাবেন

Source; Google

শিক্ষার্থীরা প্রায়শই তাদের শিক্ষা এবং অন্যান্য দৈনন্দিন প্রয়োজনের সাথে সম্পর্কিত খরচের জন্য লড়াই করতে হয় তাদের অর্থের দরকার হয়। তাই শিক্ষার্থীদের জন্য mPokket অনলাইন লোন দেওয়া হয়।যেমন মনে করেন আপনার যদি অতিরিক্ত কোর্স করার দরকার হয় এবং কোর্স করতে অর্থের প্রয়োজন হয়। তার জন্য mPokket আছে।আরও মাসিক বিল, চিকিৎসা জরুরী বা ভ্রমণের জন্য অর্থ প্রদান করতে পারেন।

এমপকেটের উদ্দেশ্য হলো প্রয়োজনের সময় যেকোনো মূহুর্তে লোন দেওয়া। mPokket থেকে শুধু মাত্র ভারতের কলেজ স্টুডেন্টরাই এই লোন নিতে পারবে। অর্থাৎ আপনি যদি ভারতের স্টুডেন্ট হয়ে থাকেন তাহলে আপনি এই এম পকেট এপস থেকে লোন নিতে পারবেন।

অন্যথায় স্টুডেন্ট বাদে নিতে পারবেন না বা সুযোগ ও নেই।

See also  কিভাবে পার্সোনাল বিকাশ একাউন্ট খুলবেন ? । Personal Bkash Account

আরো জানুনঃ ২০২২ সালে লাভজনক ব্যবসা আইডিয়া ।

Indiabulls Dhani ( ইন্ডিয়াবুলস ধানি) লোন যেভাবে পাবেন

Source: Google

Indiabulls Dhani “ইন্ডিয়াবুলস ধানি” এটা একটি সেরা অ্যাপস নামে পরিচিত এবং ব্যক্তিগত লোন অ্যাপ্লিকেশন।

যা বলা হয়ে থাকে ১০০০ টাকা থেকে ১৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ব্যক্তিগত লোন অফার করে। এই অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোর থেকে বিনামূল্যে ডাউনলোড করা যায় আপনি যদি লোন নিতে চাইলে এই অ্যাপের মাধ্যমে লোন নিতে পারবেন এবং যারা এই লোন নেওয়ার জন্য

এলিজিবিল হয়ে থাকে তখন তাদের ব্যাঙ্ক একাউন্ট এক দিনের মধ্যেউ ব্যাঙ্কে লোণের টাকা পৌঁছে যায় ।

ZestMoney (জেস্ট মানি) লোন যেভাবে পাবেন

Source: Google

জেস্ট মানি হলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা অ্যাপস এর মাধ্যমে আপনার অনেক সুযোগ সুবিধা রয়েছে। যেমন —

জেস্টমানি হলো ক্রেডিট কার্ড ছাড়া খুব সহজেই অনলাইনে EMI তে শপিং করার সুবিধা দিয়ে থাকে। আপনি জেস্টমানিতে যা যা কেনাকাটা করতে পারবেন যেমন— ফ্লিপকার্ট , আমাজন থেকে EMI তে মোবাইল , ল্যাপটপ ইত্যাদি জিনিস কিনতে পারেন।

আরও থাকছে সুযোগ তিন মাসের EMI ০% ইন্টারেস্ট।

KreditBee (ক্রেডিট বি) লোন যেভাবে পাবেন

Source: Google

ক্রেডিট বি হলো অন্যতম সেরা লোন অ্যাপ্লিকেশন বলা হয়ে থাকে । এই লোনের নিয়ম হয় —১৮ বছরের উপরে কোনও ব্যক্তি ক্রেডিট বি হতে ১০০০ টাকা থেকে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত এই লোন নিতে পারেন। এর সময় ৫ মিনিট থেকে ২৪ ঘন্টাের মধ্যে হয় এবং যে কোনো জায়গায় থেকে এই ক্রেডিট বি লোন নিতে পারেন ।আর আপনার টাকা সরাসরি ব্যাংক অ্যাকাউন্টে দিয়ে দিবে।এটাই ক্রেডিট বি লোন অ্যাপ্লিকেশন।

Bkash বিকাশ লোন যেভাবে পাবেন

Source: Google

বিকাশ থেকে লোন পাবার জন্য আপনি প্রথমে গুগল প্লে ষ্টর থেকে বিকাশ এপ নামিয়ে নিন। তার পর আপনার ন্যাশনাল আইডি কাড দিয়ে আপনার জন্য একটি বিকাশ একাউন্ট খুলে নিন । এরপর আপনি আপনার বিকাশ এপের লোন অপশনে যান। লোন অপশনে যাবার পর আপনি যদি লোন পাবার যোগ্য হন তাদের মতে তাহলে আপনি সেখানে লোন রিডিম করার অপশন পাবেন।

বিকাশ থেকে আপনি তিন মাস ব্যাপী ৫০০ টাকা থেকে ২০০০০ টাকা পযন্ত নিতে পারবেন।বিকাশ আপনার থেকে ৯% হারে সুদ নিবে। এবং প্রতি মাসে বিকাশ আপনাকে লোনের কিস্তি পরিশোধের তারিখ দিবে তার ভেতর আপনাকে আপনার বিকাশ একাউন্টে টাকা রাখতে হবে। আপনি যদি নিদিষ্ট সময়ে টাকা না দেন তাহলে বাৎসরিক অতিরিক্ত ২% বিলম্ব ফি যুক্ত হবে।

See also  ডাচ-বাংলা ব্যাংক হোম লোন কীভাবে পাবেন | Dutch Bangla Bank Home Loan process

[অতএব আমরা বলতে পারি উপরের ৬ টি যে সেরা অ্যাপস এর নাম দেওয়া এবং বিস্তারিত তুলে ধরা হয়েছে তা আশা করি সবাই বুঝতে পেরেছেন ইনশাআল্লাহ। এই ৫টি অ্যাপস এর সুযোগ সুবিধা সম্পর্কে বলা হয়েছে অতএব আপনারা নিয়ম মেনে অনলাইন লোন নিতে পারেন এই অ্যাপস এর মাধ্যমে। ]

Source: Youtube

অনলাইন লোন আবেদন যেভাবে করবেন

আপনি যদি অনলাইনে লোন নিতে ইচ্ছুখ হয়ে থাকেন।তাহলে আর দেরি না করে আবেদন কিভাবে করে শিখে নিন।

অনলাইন লোন আবেদন করতে হলে প্রথমে আপনি যে অ্যাপস থেকে লোন নিতে চান সেই সে অ্যাপস টি ডাউনলোড করে নিন।

অনলাইনে লোন নিতে হলে কি কি ডকুমেন্ট লাগবে? এবং আপনাকে কি কি জমা দিতে হবে

  • আপনার [এনআইডি কার্ড] আঁধার কার্ড লাগবে ।আঁধার কার্ডের সাথে যোক্ত থাকা মোবাইল নাম্বার লাগবে। (২) পান কার্ড। (৩)একটি ব্যাঙ্ক একাউন্ট।
  • অ্যাপস ডাউনলোড করতে হবে।অ্যাপস বলতে বোঝায় ওই সেরা ৫ টি অ্যাপসের মধ্যে যেকোনো একটা ডাউনলোড দিলেই হবে। অ্যাপসটি ডাউনলোড করার পর একের পর এক কিছু ধাপ আসবে যা অনুসরণ করতে হবে আপনাকে বলে দিবে কি কি করতে হবে। এবং অ্যাপসটি ডাউনলোড করে আপনাকে যা যা করতে বলবে আপনি সঠিক নিয়মে দিলে তাহলে আপনাকে লোন দিতে বাধ্য থাকবে। বাধ্য থাকবে তখনি যখন আপনার কাছে এই উপরের সব গুলো ডকুমেন্টস থাকলে আপনি অনলাইনে লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন ইনশাআল্লাহ।

FAQ

Q: বাংলাদেশ থেকে কি অনলাইনে লোন নেওয়া যায়?

Ans: অবশ্যই আপনি খুব সহজে এবং সেফ উপায়ে বিকাশ এর মাধ্যমে ব্যাংলাদেশ থেকে লোন নিতে পারবেন।

Q: কলকাতা থেকে শিক্ষাথীদের জন্য কোন এ্যাপ থেকে লোন নেওয়া যায় ?

Ans: আপনি যদি শিক্ষাথী হন তাহলে আপনি কলকাতা থেকে mPokket এর মাধ্যমে খুব সহজেই লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

Q: অনলাইন লোন কি নিরাপদ ?

Ans: এটা আপনাকেই যাচাই বাচাই করে নিতে হবে। কেননা এক এক এ্যপের এক এক রকম নিয়ম। প্রথমেই আপনি সব গুলো এ্যপের ট্যামস এন্ড কন্ডিশন যাচায় বাচায় করে লোন নিবেন।

পরিশেষে বলি উপরের আলোচনাগুলো অনুসরণ করলে আপনি অনলাইন লোন পেতে পারেন যেমন যে যে অ্যাপস এর নাম বলা হয়েছে তার যেকোনো একটা ডাউনলোড করে আপনি লোনের জন্য আবেদন করবেন এবং প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস নিয়ে হাজিরা দিলে অনলাইনে অবশ্যই আপনি লোন নেওয়ার যোগ্য হবেন।।অতএব সবাই ভালো থাকবেন আসসালামু আলাইকুম

1 Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *